নিউজ ফাস্ট

তাজা বাতাস ও রোদেই করোনা থেকে মুক্তি, দাবি বিজ্ঞানীদের












তাজা বাতাস এবং সূর্যের রোদ করোনা সংক্রমণের ঝুঁকি কমাতে সহায়ক হতে পারে। বুধবার ব্রিটিশ সংসদে এই তথ্য জানিয়েছেন দেশটির বিজ্ঞানীরা।

বুধবার ব্রিটিশ এমপি ক্রিস ক্লার্কসন উদ্বেগ প্রকাশ করে সংসদে জানান যে, তার এলাকার স্থানীয় পার্কগুলো জনাকীর্ণ হয়ে গেছে। এর পরিপ্রেক্ষিতে যুক্তরাজ্যে জরুরী অবস্থা মোকাবেলায় নিয়োজিত প্রতিষ্ঠান সায়েন্টিফিক অ্যাডভাইসরি গ্রুপের (সেজে) সদস্য অধ্যাপক অ্যালান পেন সংসদে বলেন, ‘সূর্যালোক এবং তাজা বাতাস করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধ করতে পারে।’ তিনি বলেন, ‘বিজ্ঞান বলছে যে সূর্যের আলোতে বাইরে থাকা, ও তাজা বাতাস সেবন, উভয়ই ভাইরাসের সংক্রমণ থেকে প্রতিরক্ষা দিতে পারে।’ তিনি জানান, এই ভাইরাস সংক্রমণ মূলত তিন ভাবে ঘটে। এটি এয়ার ড্রপলেট থেকে আসে, যার কারণে দুটি মিটার দূরত্ব রাখার নিয়ম করা হয়েছে। কারণ ড্রপলেটগুলো বাতাসে দুই মিটারের বেশি ভাসতে পারে না। এটি এরোসোলের মাধ্যমে আসতে পারে। এর মাধ্যমে এটি বেশি সময় ভাসতে পারে কিন্তু, এতে ভাইরাস বেশিক্ষণ বাঁচতে পারে না। এবং সর্বশেষ এটি বস্তুর সংস্পর্শের মাধ্যমে আসতে পারে।’ প্রফেসর পেন এমপিদের জানান যে, তিনি এবং তার সহকর্মীরা বিশ্বাস করেন যে বাইরে থাকাটা ‘সর্বনিম্ন ঝুঁকির’ কার্যকলাপগুলোর মধ্যে একটি।






যুক্তরাজ্যে গত বুধবার থেকে নতুন নিয়ম কার্যকর হয়েছে। এর ফলে ব্রিটিশরা দুই মিটার দূরত্ব বজায় রেখে যতক্ষণ খুশি বাইরে সময় কাটাতে পারবেন।

No comments