নিউজ ফাস্ট

সোনার দাম ভরিতে বাড়ছে ২ হাজার ৩৩৩ টাকা




আন্তর্জাতিক বাজারে সপ্তাহখানেক ধরেই দাম বাড়ার গ্রাফটা ঊর্ধ্বমুখী ছিল। অনেকেই আশঙ্কা করছিলেন, দেশেও হয়তো বাড়বে। সেটিই বাস্তবে রূপ দিলেন ব্যবসায়ীরা। নতুন করে সোনার দাম ভরিতে ২ হাজার ৩৩৩ টাকা বাড়িয়ে দিলেন তাঁরা। এতে ভালো মানের, অর্থাৎ ২২ ক্যারেটের এক ভরি সোনার অলংকার কিনতে লাগবে ৭৬ হাজার ৩৪১ টাকা। নতুন দর কাল বৃহস্পতিবার থেকে সারা দেশে কার্যকর হবে।


বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি সোনার দাম বাড়ার এই সিদ্ধান্ত আজ বুধবার রাত নয়টার দিকে জানায়। সর্বশেষ গত ২৪ সেপ্টেম্বর আগস্ট সোনার দাম ভরিতে সাড়ে ১ হাজার ৭৫০ টাকা বাড়িয়েছিল সমিতি। এর আগে ৬ আগস্ট প্রতি ভরি সোনার দাম বেড়ে ৭৭ হাজার ২১৬ টাকা হয়, যা দেশের ইতিহাসে সর্বোচ্চ।


সোনার দাম বাড়ার কারণ হিসেবে জুয়েলার্স সমিতির যুক্তি হচ্ছে, করোনার কারণে সৃষ্ট অর্থনৈতিক সংকট, চীন যুক্তরাষ্ট্রের বাণিজ্যযুদ্ধ ও আসন্ন মার্কিন নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ইউএস ডলার নিম্নমুখী ভাব, তেলের দরপতন ও নানাবিধ জটিল অর্থনৈতিক সমীকরণের মধ্যেও চলতি বছর চার দফায় সোনার দাম কমানো হয়।

তবে আন্তর্জাতিক ও দেশের বুলিয়ন বাজারে আবার সোনার দাম বাড়ছে। তাই সার্বিক অবস্থা বিবেচনা করে সোনার দাম বাড়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।


সোনার নতুন দর বৃহস্পতিবার থেকে কার্যকর হওয়ায় ২২ ক্যারেটের এক ভরি সোনার অলংকার কিনতে লাগবে ৭৬ হাজার ৩৪১ টাকা। এ ছাড়া ২১ ক্যারেট ৭৩ হাজার ১৯২ টাকা, ১৮ ক্যারেট ৬৪ হাজার ৪৪৪ টাকা এবং সনাতন পদ্ধতির সোনার অলংকারের ভরি বিক্রি হবে ৫৪ হাজার ১২১ টাকায়।


আজ বুধবার পর্যন্ত প্রতি ভরি ২২ ক্যারেট সোনা ৭৪ হাজার ৮ টাকা, ২১ ক্যারেট ৭০ হাজার ৮৫৯ টাকা, ১৮ ক্যারেট ৬২ হাজার ১১১ টাকা এবং সনাতন পদ্ধতির সোনা বিক্রি হয়েছে ৫১ হাজার ৭৮৮ টাকায়। কাল থেকে ২২, ২১, ১৮ ক্যারেট ও সনাতন পদ্ধতির সোনার ভরিতে ২ হাজার ৩৩৩ টাকা বাড়বে।কয়েক মাস ধরেই আন্তর্জাতিক বাজারে সোনার দর ঊর্ধ্বমুখী। সেই কারণে দেশের বাজারেও দফায় দফায় দাম বাড়িয়েছেন ব্যবসায়ীরা। 


গত ২৩ জুন সোনার দাম ভরিতে ৫ হাজার ৮২৫ টাকা, গত ২৪ জুলাই ২ হাজার ৯১৬ টাকা, ৬ আগস্ট ৪ হাজার ৪৩৩ টাকা বৃদ্ধি করে জুয়েলার্স সমিতি। তারপর দুই দফায় কমে ৪ হাজার ৯৫৮ টাকা। বিশ্ববাজারে আজ বুধবার রাত সাড়ে ৯টায় প্রতি আউন্স (৩১.১০৩৪৭৬৮ গ্রাম) সোনার দাম ছিল ১ হাজার ৯০৯ ডলার।


সোনার দাম ভরিতে বাড়ছে

২ হাজার ৩৩৩ টাকা

এদিকে সোনার দাম বাড়ালেও রুপার দাম অপরিবর্তিত রেখেছে জুয়েলার্স সমিতি। ২২ ক্যারেট রুপার ভরি আগের মতোই ১ হাজার ৫১৬ টাকায় বিক্রি হবে। ২১ ও ১৮ ক্যারেট রুপার ভরি যথাক্রমে ১ হাজার ৪৩৫ ও ১ হাজার ২২৫ টাকা। আর সনাতন পদ্ধতির রুপার ভরি ৯৩৩ টাকায় বিক্রি হবে।


জানতে চাইলে জুয়েলার্স সমিতির সাধারণ সম্পাদক দিলীপ কুমার আগরওয়ালা  বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনসহ নানা কারণে মার্কিন ডলারের ওপর কেউ আস্থা রাখতে পারছে না। সব দেশ সোনা মজুত করছে। সে কারণে আন্তর্জাতিক বাজারে দাম বাড়ছে। আমরাও দাম বাড়াতে বাধ্য হচ্ছি।’



No comments