নিউজ ফাস্ট

আগামীর মেসি জার্মানির জামাল মুসিয়ালা


জার্মানির ১৯ বছর বয়সী কিশোর জামাল মুসিয়ালা রোববার স্পেনের বিরুদ্ধে ম্যাচে দেখিয়েছেন দুর্দান্ত পারফরম্যান্স। টটেনহ্যামের সাবেক ম্যানেজার মরিসিও পোচেত্তিনো বিবিসিকে তার ব্যাপারে বলেছিলেন, এই কিশোর আগামীর মেসি হওয়ার যোগ্যতা রাখে। পোচেত্তিনো ছাড়াও একই কথা বলেছেন ১৯৯০ এর বিশ্বকাপজয়ী জার্মান কিংবদন্তি ফুটবলার লোথার ম্যাথাউস।


গতকাল রোববার রাতে স্পেনের বিরুদ্ধে ম্যাচে দুর্দান্ত পারফরম্যান্স দেখিয়েছেন মুসিয়ালা। ৮৪ শতাংশ নির্ভুল পাস, শতভাগ সম্পূর্ণ ক্রসিং, সাতটি সফল গ্রাউন্ড ডুয়েল এবং শেষপর্যন্ত ফুলক্রুগকে গোল করতে সহায়তা, সবই ছিল ফুটবলপ্রেমীদের চোখে লেগে থাকার মতো।


দুরন্ত গতি, নিখুঁত পাসিং, সৃজনশীলতা এবং গোল করার সহজাত ক্ষমতা দেখেই তরুণ এই মিডফিল্ডারকে লিওনেল মেসির সমান্তরাল প্রতিভার অধিকারী বলে মন্তব্য করেছেন লোথার ম্যাথাউস। তিনি বলেছেন, মুসিয়ালা দুর্দান্ত। ওর পক্ষে ভবিষ্যতে মেসির জায়গা নেয়া সম্ভব। আমি ওর স্টাইল পছন্দ করি। গত দুই বছর ধরে ওর খেলা আমাকে মুগ্ধ বানিয়ে ছাড়ছে। 


মেসির সঙ্গে তুলনা যেকোনো তরুণ ফুটবলারের জন্যই অনেক বড় পাওয়া। সাতবারের ব্যালন ডি অর জেতা মেসির সঙ্গে তুলনা করার বিষয়টিকে এই তরুণ জার্মানও দেখছেন সম্মানের চোখে। এক সংবাদ সম্মেলনে জামাল মুসিয়ালা বলেন, মেসির সঙ্গে তুলনা আমার কাছে সম্মানের ব্যাপার।


বায়ার্ন মিউনিখের হয়ে চলতি মৌসুমেই ৯টি গোল করেছেন মুসিয়ালা। দুই বছর আগে জার্মান জাতীয় দলে অভিষেক হওয়া এই তরুণ মাঠে তার নির্লিপ্ত আচরণ দিয়েই নজর কেড়েছেন সবার, এরই মধ্যে হয়ে উঠেছেন জার্মান জাতীয় দলে মাঝমাঠের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ অংশ। এমনকি এবারের বিশ্বকাপের অন্যতম সেরা উদীয়মান তারকা হয়ে উঠেছেন মুসিয়ালা।


বর্তমানে জার্মানিতে খেললেও আন্তর্জাতিক ফুটবলে মুসিয়ালার শুরুটা হয়েছিল ইংল্যান্ডের হয়েই। শেষপর্যন্ত ইংল্যান্ডের অনূর্ধ্ব ২১ দলে জায়গা না পেয়ে জন্মস্থান জার্মানির হয়েই প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপের মাঠে নামলেন তিনি। 

কোন মন্তব্য নেই