নিউজ ফাস্ট

যুক্তরাষ্ট্রের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ নির্বাচনটি হচ্ছে এবার : ওবামা





মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আর মাত্র কয়েক দিন বাকি। নির্বাচনের সময় যত ঘনিয়ে আসছে ততই জোরদার হচ্ছে নির্বাচনী প্রচারণা। এরইমধ্যে জো বাইডেনের পক্ষে মাঠে নেমেছেন সাবেক ডেমোক্র্যাট প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। বুধবার পেনসিলভানিয়ার বৃহত্তম নগরী ফিলাডেলফিয়ায় স্থানীয় সময় বিকেলে ওবামা তার ভাষণে বলেন, আমাদের জীবনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ নির্বাচনটি আর মাত্র ১৩ দিন পর অনুষ্ঠিত হচ্ছে। আমরা পরবর্তী ১৩ দিনে যা করব তা কয়েক দশক ধরে গুরুত্বপূর্ণ হবে।


যুক্তরাষ্ট্রের যেসব অঙ্গরাজ্যে ডোনাল্ড ট্রাম্প ও বাইডেনের মধ্যে তীব্র লড়াইয়ের আভাস পাওয়া যাচ্ছে, সেগুলোর একটি পেনসিলভানিয়া। পেনসিলভানিয়াকে গুরুত্ব দিচ্ছে রিপাবলিকান শিবিরও। ওই অঙ্গরাজ্যের আরেক শহরে সমাবেশ করেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। ২০১৬ সালের নির্বাচনে এ অঙ্গরাজ্যে অল্প ব্যবধানে তিনি জিতেছিলেন এবং এবারও এখানকার শ্বেতাঙ্গ শ্রমজীবী শ্রেণির ভোট মুঠোবন্দি করার আশা তার রয়েছে। 


নির্বাচনের বাকি দুই সপ্তাহেরও কম।

শেষ দিনগুলোকে সর্বোচ্চ কাজে লাগানোর জন্য গোটা দেশ চষে বেড়াচ্ছেন রিপাবলিকান প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। দিনে দুই-তিনটি করে সমাবেশে অংশ নিচ্ছেন তিনি। স্বাস্থ্যবিধিকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে তাতে গাদাগাদি করে অংশ নিচ্ছে সমর্থকরা।

ট্রাম্প বুধবার পেনসিলভানিয়া অঙ্গরাজ্যে এক নির্বাচনী জনসভায় নিজ সমর্থকদের আশ্বাস দেন যে, ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেনকে তিনি অনেক বড় ব্যবধানে পরাজিত করতে যাচ্ছেন। জনসভায় দেওয়া বক্তৃতায় মার্কিন প্রেসিডেন্ট তার প্রতিদ্বন্দ্বী বাইডেনকে আবারও তীব্র ভাষায় আক্রমণ করেন। তিনি বলেন, ২০২০ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে বাইডেন জয়ী হলে তিনি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে একটি সমাজতান্ত্রিক রাষ্ট্রে পরিণত করবেন।


নিজের শাসনামলের সাফল্য তুলে ধরতে গিয়ে ট্রাম্প দাবি করেন, করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে আমেরিকার অর্থনীতির যে মারাত্মক ক্ষতি হয়েছিল তা তিনি ছয় মাসের ব্যবধানে পুষিয়ে দিয়েছেন। আমেরিকার অর্থনীতিতে চাঙ্গাভাব ফিরে এসেছে বলে ট্রাম্প দাবি করেন। মার্কিন প্রেসিডেন্ট তার দেশের অর্থনীতি সম্পর্কে এমন সময় এ দাবি করলেন যখন সম্প্রতি খবর বেরিয়েছে, প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস মহামারীর কারণে মারাত্মক দারিদ্রের কবলে পড়েছে আমেরিকায় আরো অন্তত ৮০ লাখ মানুষ।



No comments